You are here:

Welcome To Government B. L. College Khulna

Welcome To Ispahani Girls' School and College sdsafsfsaf
You are here:

Academics Rules & Regulations

স্কুল শাখার অভিভাবকদের প্রতিঃ

১. অভিভাবক ডায়েরীতে তার নিজের পরিচিতি ও নমুনা স্বাক্ষর দিবেন।
২. অভিভাবক নিয়মিত ডায়েরী পর্যবেক্ষণ করবেন স্বাক্ষর দিবেন।
৩. অভিভাবককে বিদ্যালয়ের বিশেষ অনুষ্ঠানে/ছাত্রীর শিক্ষা সংক্রান্ত ব্যাপারে যোগদানের জন্য যে আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হবে তা গ্রহণ করে ডায়েরীর নির্ধারিত পৃষ্ঠায় তারিখসহ স্বাক্ষর দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে।
৪. ছাত্রীর পাঠের অগ্রগতি ও বিদ্যালয়ে তাদের উপস্থিতি ডায়েরী থেকে জেনে নিশ্চিত হবেন এবং অনুগ্রহ করে শিক্ষক/শিক্ষিকার মন্তব্য লক্ষ্য করবেন।
৫. ছাত্রীর লেখাপড়া সম্পর্কে বিশদ কোন তথ্য জানতে হলে প্রতিমাসের দ্বিতীয় এবং শেষ শনিবার সকাল ১০টা থেকে ১২টার মধ্যে শ্রেণী শিক্ষক/শিক্ষিকার সাথে যোগাযোগ করবেন।
৬. বিদ্যারয়ে সপ্তাহের প্রতি মাসের শেষ বৃহস্পতিবার শেষ পিরিয়ডে শ্রেণীকক্ষে ছাত্রীদের পরিচালনায় সাংস্কৃতিক কার্যক্রম/বির্তক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতি বছর ছাত্রী, শিক্ষ/শিক্ষিকাদের রচনায় সমৃদ্ধ একটি বার্ষিকী প্রকাশিত হবে। অভিভাবককে তার সন্তানের প্রতিভা বিকাশের ব্যাপারে অনুপ্রাণিত করার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে।
৭. প্রত্যেক ছাত্রীর বিদ্যালয়ে উপস্থিতি অপরিহার্য। প্রতিদিনের অনুপস্থিতির জন্য ৫(পাঁচ) টাকা হারে জরমানা প্রদান করতে হবে। প্রতি বৎসর তিনটি টার্মের ফলাফল গড় করা হবে যা পাঠোন্নতির বিবরণীতে উলে­খ করা হবে। প্রত্যেক ছাত্রীর বিদ্যালয়ের কার্যকালের ৮০% না হলে এবং পরীক্ষার নম্বর ৪০% না হলে পরবর্তী শ্রেণীতে উন্নীত করা হবে না।
৮. একই শ্রেণীতে পরপর দুই বৎসর অনুত্তীর্ণ হলে ছাত্রীকে ছাড়পত্র দেয়া হবে।
৯. নিজ মেয়েকে বিদ্যালয়ের নিয়ম শৃঙ্খলা মেনে চলতে ও সৎপথে থাকার জন্য নিয়মিত উপদেশ দিতে অনুরোধ করা যাচ্ছে।
১০. কারো ডায়েরী হারয়ে গেলে যুক্তিযুক্ত কারণ দেখিয়ে ৪৫(পয়তালি­শ) টাকা জমা দিয়ে নতুন ডায়েরী সংগ্রহ করতে হবে।
১১. প্রতিটি পরীক্ষা আরম্ভ হওয়ার পূর্বে ডায়েরী শ্রেণী শিক্ষক/শিক্ষিকার কাছে জমা না দিলে ফলাফল স্থগিত থাকবে।
১২. বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল পাঠোন্নতির বিবরণপত্রের মাধ্যমে অবগত হবেন। অনুত্তীর্ণ ছাত্রীর নাম ফল প্রকাশের ১৫ দিনের মধ্যে হাজিরা খাতায় না উঠলে তার আসন সংরক্ষন করা হবে না।
১৩. কোন বিশেষ অসুবিধার কারণে কো ছাত্রী অনুপস্থিত থাকলে তা ডায়েরীতে নির্ধারিত পৃষ্ঠায় উলে­খপূর্বক অভিভাবক নিজ স্বাক্ষর করবেন।
১৪. অসুস্থতার কারণে ৭(সাত) দিনের বেশী অনুপস্থিত থাকলে দরখাস্তের সাথে অবশ্যই ডাক্তারের সার্টিফিকেট সংযুক্ত করতে হবে।
১৫. পূর্ব অনুমতি ব্যতীত কোন ছাত্রী ০১(এক) মাসের বেশী অনুপস্থিথ থাকলে বিনা নোটিশে নাম কাটা যাবে।
১৬. ডায়েরী উলি­খিত ডাক্তারী পরীক্ষার প্রাথমিক রিপোর্ট/মন্তব্য অভিভাবককে গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করতে এবং প্রয়োজনে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে।
১৭. ডায়েরীতে শিক্ষক/শিক্ষিকা ব্যতীত অন্য কেহ মন্তব্য লিখবেন না।
১৮. যে কোন পরীক্ষায় কোন প্রকার অসদুপায় অবলম্বন করলে অথবা আচার আচরণে ত্র“টি পরিরক্ষিত হলে অথবা বিদ্যালয়ৈর নিয়ম মেনে না চললে, শৃঙ্খলা পরিপšী’ কাজ বলে বিবেচিত হবে, সে ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তই চুড়ান্ত বলে বিবেচিত হবে।
১৯. অভিভাবক/অভিভাবিকাদের নিজ দায়িত্বে বিদ্যালয় শুরু হওয়ার পূর্বে বিদ্যালয়ে পৌছে দিতে হবে এবং ছুটির পর নিয়ে যেতে হবে।
২০. ১ম সাময়িক ও ২য় সাময়িক পরীক্ষার ফলাফল অভিভাবকবৃন্দ শ্রেণী শিক্ষক/শিক্ষিকার নিকট হতে গ্রহণ করবেন।
২১. বিদ্যালয় কার্যকালের আগে বা পরে এবং বিদ্যালয় প্রাঙ্গনের বাইরে কোন প্রকার দুর্ঘটনার জন্য বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ দায়ী নন।
২২. প্রমোশনের জন্য কোন প্রকার সুপারিশ গ্রহণ করা হবে না।
২৩. অভিভাবক/অভিভাবিকা ও শিক্ষক/শিক্ষিকার সম্মিলিত প্রয়াসের ফলে এবং ছাত্রীর পাঠোন্নতি ও চরিত্র গঠন সম্ভব।


ছাত্রীদের জন্য গুরুত্ব সহকারে পালনীয়ঃ

১. সর্বশক্তিমান আল­াহতায়ালাকে স্মরণ করে সকল কার্য আরম্ভ করবে।
২. মাতাপিতা, শিক্ষক/শিক্ষিকা ও বড়দের শ্রদ্ধা ও মান্য করবে।
৩. সৎপথে চলবে, অন্যায়কে ঘৃণা করবে। অন্যায়কারীদের প্রতিরোধ করবে।
৪. সৎচিন্তা করবে।
৫. লোভ সংবরণ করবে, অল্প আহার ও অল্প নিদ্রায় তুষ্ট থাকবে।
৬. অধ্যাবসায়ী ও পরিশ্রমী হবে। হতাশ হবে না। সফলতার জন্য আল­াহর উপর ভরসা রাখবে এবং শক্তি প্রার্থনা করবে।
৭. বিদ্যালয়ের ক্লাশ শুরু হবার ১০/১৫ মিনিট আগে বিদ্যালয়ে আসবে এবং ছুটি হবার ১০/১৫ মিনিটের মধ্যে বিদ্যালয় ত্যাগ করবে। এর আগে পরে আসবে না বা থাকবে না।
৮. বিদ্যালয় চলাকালীন কোন ছাত্রী অনুমতি ব্যতিরেকে প্রতিষ্ঠান প্রাঙ্গণের বাইরে গেলে কর্তৃপক্ষ শাস্তিমূলক ছাড়পত্র দিতে বাধ্য থাকবেন।
৯. পরিস্কার পরিচ্ছন্নভাবে বিদ্যালয়ের পোষাক(ইউনিফরম) পরিধান করে বিদ্যালয়ে উপস্থিত থাকবে।
১০. ছাত্রীরা মাথার চুল ছোট কাটবে না এবং কোন প্রকার উগ্র প্রসাধনী ব্যবহার করা যাবে না। বিদ্যালয়ের নিয়মানুযায়ী সাদা ফিতা ব্যবহার করতে হবে। কোন রঙ্গিন ফিতা , ক্লিপ ব্যবহার করা যাবে না। কোন অলংকার (বেবী রং ব্যতীত) পরা যাবে না।
১১. বিদ্যালয়ের ভিতরে এবং শালীনতা বজায় রেখে পোষাক পরিচ্ছদ ব্যবহার করতে হবে।
১২. নিয়মিত বিদ্যালয়ে আসবে ও শৃঙ্খলা বজায় রাখবে।
১৩. গহনা বা কোন দামী জিনিস নিয়ে বিদ্যালয়ে আসা যাবে না।
১৪. বিদ্যালয় অঙ্গঁণ ও নিজের শ্রেণীকক্ষ পরিচ্ছন্ন রাখবে।
১৫. রুটিন দেখে প্রতিদিনের পাঠ শিখবে।
১৬. বিদ্যালয়ে প্রতি সপ্তাহের বৃহস্পতিবার শেষ পিরিয়ডে শ্রেণীকক্ষে ছাত্রীদের পরিচালনায় সাংস্কৃতিক কার্যক্রম/বির্তক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে এতে প্রত্যেক ছাত্রীকে অংশ গ্রহণ করতে হবে।
১৭. বিদ্যালয়ে শ্রেণী/শাখাকে সাতটি হাউসে ভাগ করা হবে এবং পদ্মা, মেঘনা, যমুনা, রুপসা, তিস্তা, কর্ণফুলি, সুরমা প্রভৃতি নদীর নামে নামকরণ করা হবে। এতে প্রত্যেক ছাত্রীর মধ্যে শৃঙ্খলা মেনে চলার শিক্ষা ও সংস্কৃতি ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতার মনোভাব গড়ে উঠবে।
১৮. প্রতি বছর ছাত্রী, শিক্ষক/শিক্ষিক দের রচনায় সমৃদ্ধ একটি বার্ষিকী প্রকাশিত হয়। এতে প্রত্যেক ছাত্রী অংশগ্রহণ করতে পারবে।
১৯. প্রতিদিনের নির্ধারিত পাঠ্যপুস্তক, খাতা, পেন্সিল, কলম নিয়ে বিদ্যালয়ে উপস্থিত হবে।
২০. অভিভাবককে বিদ্যালয়ের বিশেষ অনুষ্ঠানে ছাত্রীর কোন বিষয়ে যোগদানের জন্য যে আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হবে তা ছাত্রী নিজ অভভাবককে দেখিয়ে ডায়েরীতে নির্ধারিত পৃষ্ঠায় অভিভাবকের স্বাক্ষর আনবেন।
২১. পরীক্ষা কক্ষে নিজ নিজ প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি যেমনঃ কলম,পেন্সিল, জ্যামিতি বক্স, স্কেল, রং ইত্যাদি সঙ্গে আনতে হবে। অন্যের কাছে কিছু চেয়ে শৃঙ্খলা ভঙ্গ করবে না।
২২. পরীক্ষা আরম্ভ হওয়ার পূর্বের দিন ডায়েরী শ্রেণী শিক্ষক/শিক্ষিকার কাছে জমা দিতে হবে। অন্যথায় ফলাফল স্থগিত থাকবে।
২৩. পাঠান্নতির বিবরণ পত্র হাতে পাওয়ার ০৩(তিন) দিনের মধ্যে বিবরণপত্র অভিভাবককে অবশ্যই দেখাবে এবং নিজ স্বার্থে সচেতন হবে।
২৪. কোন বিশেষ অসুবিধার জন্য ছাত্রী স্কুলে অনুপস্থিত থাকলে ডায়েরীর র্নিধারিত পৃষ্ঠায় কারণসহ অভিভাবককের স্বাক্ষর আনতে হবে।
২৫. ছাত্রী ডায়েরীতে নির্ধারিত স্থানে স্কুলের ডাক্তারের রিপোর্ট/মন্তব্য অভিভাবককে অবশ্যই দেখাবে এবং নিজ স্বার্থে সচেতন হবে।
২৬. নিয়মিত স্কুলে আসবে, অসুস্থতার কারণে ০৭(সাত) দিনের বেশী অনুপস্থিত থাকলে ডাক্তারী সার্টিফিকেটসহ দরখাস্ত করবে।
২৭. গুরুতর অসুস্থতা ব্যতীত বিদ্যালয়ে আসার পর ছুটি দেয়া হবে না, খুবই জরুরী হলে অভিভাবকের নিজ হাতে লিখিত দরখাস্ত আনতে হবে।
২৮. প্রতি মাসে বেতন পরিশোধ করবে।
২৯. প্রতি বিষয়ে বা পত্রে কমপক্ষে ০২টি শ্রেণী পরীক্ষা হবে। এই পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করা বাধ্যতামূলক। অন্যথায় বার্ষিক পরীক্সার ফল ঘোষনা করা হবে না।
৩০. ডায়েরীতে নির্দিষ্ট অভিভাবক ছাড়া অন্য কারো স্বাক্ষর গ্রহণযোগ্য নয়।